চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে কিশোরী-বৃদ্ধসহ নিহত ৩

নাদিম হোসেন,চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিঃ       ঝড় ও বৃষ্টির সময় পৃথক স্থানে বজ্রপাতে ৩ জনের মৃত্যু হয়েছে চাঁপাইনবাবগঞ্জে। এছাড়াও গুরুতর আহত হয়েছেন আরও একজন। বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বিকেলে সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নের বাবুইড্যাং ফিল্টিপাড়া ও নাচোল উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের আলিশাপুর গ্রামে এ বজ্রপাতের ঘটনা ঘটে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ঝিলিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম মতু ও নাচোল থানার ওসি সেলিম রেজা।

বজ্রপাতে নিহতরা হলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার বটতলা হাটপাড়া এলাকার মৃত নজরুল ইসলামের ছেলে মেসবাউল হক মিশু (৪০), শংকরবাটি বটতলা এলাকার মৃত দাউদ আলীর ছেলে আব্দুর রহমান (৬০) ও নাচোল উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের আলিশাপুর গ্রামের আব্দুর রহমানের মেয়ে ফারজানা (১২)। গুরতর আহত ব্যক্তির নাম তরিকুল ইসলাম (৩৮)। তিনি শংকরবাটি বটতলা হাট এলাকার বাসিন্দা ও নিহত দুই জনের সাথে আম পাড়তে গেছিলেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভার ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবদুল বারেক, প্রতক্ষ্যদর্শী শাহজাহান ও ঝিলিম ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মতি জানান, নিহত মিশু ও আব্দুর রহমান ঝিলিম ইউনিয়নের ফিল্টিপাড়ায় অংশীদারত্বের ভিত্তিতে একটি আম বাগান কিনেছিলেন। বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে মিশু আম পাড়ছিলেন ও আব্দুর রহমান রান্না করছিলেন। এসময় বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই দুইজনই নিহত হয়। এদিকে তরিকুল ইসলাম গুরতর আহত হলে স্থানীয়রা তাকে উদ্বার করে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

অন্যদিকে, নাচোল উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের আলিশাপুর গ্রামে বজ্রপাতে একই গ্রামের আব্দুর রহমানের মেয়ে মোসা. ফারজানা খাতুম (১২) নামে এক কিশোরীর মৃত্যু হয়েছে। ইউপি সদস্য আব্দুস সাত্তার মৃত কিশোরীর স্বজনদের বরাত দিয়ে জানান, বিকেল আনুমানিক ৪ টার দিকে বৃষ্টির আগে মাঠের মধ্যে থাকা রাজহাঁস আনতে গিয়ে বজ্রপাত হলে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নাচোল থানার অফিসার-ইন-চার্জ (ওসি) সেলিম রেজা।

সদর উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকতা মৌদুদ আলম খাঁ জানান, সদর উপজেলার ঝিলিম ইউনিয়নে দুইজন ব্যক্তি বজ্রপাতে নিহত হয়েছে। বিষয়টি পৌরসভা কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। খোঁজ খবর নিয়ে আর্থিক সহযোগিতা করা হবে বলেও জানান তিনি।

Author: রাসেল হাওলাদার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *