চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় বিশেষ বিধি নিষেধ উপেক্ষিত

মোঃ নাদিম হোসেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :     চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় সংক্রমন নিম্নমুখি হওয়ায় জেলা প্রশাসনের দেয়া ২ দফায় ১৪দিনের লকডাউন স্থগিত করে বিশেষ বিধি নিষেধ আরোপ করে জেলায় কলোর বিশেষ লকডাউন সিথিল করে ৮জুন থেকে। কঠোর লকডাউন প্রত্যাহার করলে জেলা মানুষ স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা শুরু করে। মার্কেটগুলোতে মানা হচ্ছে জেলা প্রশাসনের দেয়া বিশেষ বিধি নিষেধ, স্বাস্থ্যবিধি। রাস্তায় মোটরসাইকেল, অটোবাইক, রিক্সায় যাত্রী পরিবহনে মানা হচ্ছে না কোন নির্দেশনা। অন্যান্য দোকানপাটেও স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে না। বিষয়টির সত্যতা স্বীকার করে বাস্তব অবস্থা জেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির কাছে প্রতিদিনই অবহিত করা হচ্ছে বলছেন জেলা সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী।

করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি প্রতিরোধে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় বিশেষ বিধি নিষেধ চলাকালে বুধবার দুপুরে সিভিল সার্জন জানান, জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় ৪০২ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে ৬৫ জনের। যা প্রায় সোয়া ১৬%। জেলায় মোট করোনা সনাক্ত ২৮১৮ জন, চিকিৎসাধিন আছেন ১২৯৩ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১৪৬৪ জন।

জেলায় মোট মৃত্যু ৬১জন। সাধারণ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি না মানায় চরম উদ্বিগ্ন জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর বলে জানান সিভিল সার্জন। সকলকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য জোরালোভাবে অনুরোধ জানান সিভিল সার্জন। জেলা প্রশাসনের দেয়া বিশেষ বিধি নিষেধগুলো হচ্ছে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত দোকানপাট ও শপিংমল খোলা রাখা, রিক্সায় ১জন ও অটোবাইকে ২জন যাত্রী নিয়ে চলাচল, সাপ্তাহিক হাট-বাজার ১৬ জুন পর্যন্ত বন্ধ। মোটরসাইকেলে আরোহী ছাড়া না চড়া। নিত্য প্রয়োজনীয় ও মনোহরি দোকান সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা রাখা, স্বাস্থ্যবিধি মেনে আম কেনা-বেচা করা এবং আম বাজারগুলো নিকটস্থ স্টেডিয়াম, কলেজ ও স্কুল মাঠে স্থানান্তর করা, জনসমাবেশমূলক অনুষ্ঠান বন্ধ, খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরা সকাল ৬টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত খোলা রাখা, তবে হোটেলে বসে খাওয়া যাবে না।

আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে মাস্ক পরে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলাচল করবে, অন্যথায় আইনানুগ ব্যবস্থা, শিল্প-কলকারখানা স্বাস্থ্যবিধি মেনে নিজস্ব ব্যবস্থাপনা চালু রাখা, জুম্মার নামাজসহ ৫ ওয়াক্ত নামাজে ২০ জন মুসল্লী অংশ নেয়া, অন্যান্য উপসনালয়ে ২০ জন অংশ নেয়া, কৃষি কাজের সাথে সংশ্লিষ্ট মানুষ বা যানবাহন স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকাল ৯টা থেকে ৫টা পর্যন্ত চলাচল করবে।

Author: রাসেল হাওলাদার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *