Home Privacy Policy About Contact Disclimer Sitemap
নোটিশ :
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ! সারাদেশে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে । যোগায়োগ করুন : ০১৭৪০৭৪৩৬২০
সংবাদ শিরোনাম :
সৎ কর্তব্য পরায়ণ ও গরিবের বন্ধু বরগুনার এসপি জাহাঙ্গীর মল্লিক অপরাধ দমনে পুলিশ-সাংবাদিক একসাথে কাজ করবে- পুলিশ সুপার বরগুনা রাজধানীর ভাটারা থানাধীন শাহজাদপুর থেকে গৃহবধু নিখোজ মিডিয়া ব্যক্তিত্বে জাতীয় পর্যায়ে শেখ হাসিনা ইয়্যুথ ভলান্টিয়ার অ্যাওয়ার্ড ২০২০ পেলেন দ্বীপাঞ্চলের রিয়াদ বরগুনায় বাবা-ছেলে কর্তৃক কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগ বরগুনা রিপোর্টার্স ইউনিটির-২০২২ সালের কার্যনির্বাহী কমিটির দায়িত্ব গ্রহণ অভিযান-১০” লঞ্চে অগ্নিকান্ড, বরগুনায় অজ্ঞাতদের জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন শিক্ষা মন্ত্রীর অঙ্গীকার বাস্তবায়ন চাই, বিএমজিটিএ সভাপতি ত্যাগী নেতা-কর্মীদের নাকের ডগায় ভুঁইফোররা দলে রাম রাজত্ব করছে : পরশ উপকূলীয় জীবন ও জীবিকার নিরাপত্তায় মতবিনিময় সভায় র‍্যাব ফোর্সেস মহাপরিচালক -আল-মামুন
ত্যাগী নেতা-কর্মীদের নাকের ডগায় ভুঁইফোররা দলে রাম রাজত্ব করছে : পরশ

ত্যাগী নেতা-কর্মীদের নাকের ডগায় ভুঁইফোররা দলে রাম রাজত্ব করছে : পরশ

রাসেল হাওলাদার, বরগুনা :  ১২ বছর রাষ্ট্রক্ষমতায় থাকার পরেও আমাদের দলের শোষিত বঞ্চিত নেতা-কর্মীরা এখনো দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছে, অথবা মনের দুঃখে ঘরের মধ্যে বন্দি হয়ে রয়েছে। এদের দীর্ঘশ্বাসে  আমরা ধংস হয়ে যাবো, আমাদের উচিত এদের সম্মান দেয়া, এদের মূল্যায়ন করা। অপরদিকে ত্যাগী নেতা-কর্মীদের নাকের ডগার উপর দিয়ে দলের মধ্যে ‘দলের মধ্যে ভুঁইফোর অনুপ্রবেশকারীরা রাম রাজত্ব করতেছে’। এবরগুনার শহীদ মিনার চত্বরের টাউনহল মাঠে আওয়ামী যুবলীগের ত্রীবার্ষিক সম্মেলন উপলক্ষে আয়োজিত সমাবেশে উদ্বোধকও  প্রধান অথিতির বক্তৃতায় যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ এ কথা বলেন। তিনি বলেন, কিছু অসাধু তথাকথিত নেতৃবৃন্দ ব্যক্তিস্বার্থে দলের মধ্যে অনুপ্রবেশকারীদের জায়গা দিয়ে আমাদের পরীক্ষিত দুঃসময়ের নেতা-কর্র্মীদের বঞ্চিত করা হচ্ছে। এটা সংগঠনের জন্য অপরিসীম ক্ষতিকর।

এর মাধ্যমে বিএনপি জামায়াত শিবিরের নেতা-কর্মীরা পুনর্বাসিত হচ্ছে এবং দলের ভিতর ঢুকে আমাদের চরম ক্ষতিসাধন করছে। পরশ বলেন, আমি মনে করি এটার স্বাধীনতা বিরোধী চক্র জামায়াত বিএনপির সুপরিকল্পিত নীল নকশা। আমাদের সংগঠনকে দূর্বল করে আমাদের সংগঠনকে দূর্বল করার একটা অপচেষ্টা।

এটা কোনোদিনও মেনে নেয়া যায়না। অনুপ্রবেশকারীরে প্রসঙ্গে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, অনুপ্রবেশকারীরা আমাদের বন্ধুবেশে শত্রু হিশেবে প্রবেশ করে আমাদের মধ্যে বিচরণ করছে। আমাদের প্রানের সংগঠনের প্রতি তাদের কোনো দরদ নাই। তারা এসেছে বিগত দিনে তাদের অপকর্ম ঢাকতে। তারা তাদের স্বার্থ হাসিল করে দিন পরিবর্তন হলে আর চিনবেনা। যুবলীগের নেতাকর্মীদের এদের ব্যপারে সতর্ক করে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচনের ক্ষেত্রে যুবলীগের উদ্দেশ্যে পরশ বলেন, নেতা নির্বাচনের ক্ষেত্রে ত্যাগী সাংগঠনিক অভিজ্ঞতা সম্পন্ন নেতা-কর্মীদেরকে নির্বাচন করবেন। যারা আমাদের দলের দুঃসময়ে সংগ্রাম করেছে, জেল ও জুলুম ত্যাগ ও তিতিক্ষা করেছে। বিবেচনা করবেন বিগত দিনগুলোতে তাদের কর্মকান্ড, কার্যকলাপ ও অবদান। আমলে নিবেন ছাত্ররাজনীতিতে তাদের অবদান। এছাড়াও সাম্রতিক দুর্যোগে তাদের ভূমিকাও মূল্যায়ন করবেন।

ত্যাগীদের মূল্যায়ন প্রসঙ্গে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, ত্যাগী নেতা-কর্মীদের মূল্যায়ন না করা হলে তাদের দীর্ঘশ্বাসে আমরা ধংস হয়ে যাব। আমাদের উচিত এদের সম্মান দেয়া, মূল্যায়ন করা। তিনি বলেন, ‘আমি ব্যক্তিগতভাবে কথা দিচ্ছি, তৃনমূল থেকে আমাদের বঞ্চিত ও যোগ্য নেতৃবৃন্দকে মূল্যায়ন করে অনুপ্রবেশকারীদের চক্রান্ত প্রতিহত করব।’

পদ পবদী পাওয়া না পাওয়া প্রসঙ্গে যুবলীগ চেয়ারম্যান বলেন, পদ সর্বস্ব রাজনীতিতে আমরা বিশ্বাস করিনা। আমরা কর্মে বিশ্বস করি কর্মে। তিনি তাঁর বাবা শেখ ফজলুল হক মনি অনেক স্বপ্ন নিয়ে এ সংগঠনটি বঙ্গবন্ধুর নির্দেশে গঠন করেছিলেন। তিনি চেয়েছিলেন একটা ন্যায় ও সমতার ভিত্তিতে সমাজ ব্যবস্থা গঠন। যে সমাজ ব্যবস্থায় যুবসমাজ একাধারে কারিগর হিশেবে ভুমিকা রাখবে এবং সমাজব্যবস্থার রক্ষক হিশেবে ভুমিকা রাখবে। বক্তৃতা শেষে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ বরগুনা জেলা যুবলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করে। বরগুনা জেলা আওয়ামী যুবলীগের সভাপতি আইনজীবী কামরুল আহসান মহারাজের সভাপতিত্বে বাংলাদেশ সকাল ১০টায় আওয়ামী যুবলীগ বরগুনা জেলা শাখার আয়োজিত সম্মেলন শুরু হয়। সভাস্থলে ফুল দিয়ে বরণের পর অতিথিরা বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিকে পুষ্পস্তবক অর্পণ কওে আসন গ্রহন করেণ। সভায় বিশেষ অথিতি হিশেবে উপস্থিত ছিলেন বরগুনা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট ধীরেন্দ্র দেবনাথ শমভু এমপি, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সুলতানা নাদিরা সবুর এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ্ব জাহাঙ্গীর কবীর। এছাড়াও  কেন্দ্রীয় যুবলীগের ভাইস প্রেসিডেন্ট সুভাষ চন্দ্র হাওলাদার, মজিবুর রহমান চৌধুরি নিক্সন, বরিশাল বিভাগীয় দায়িত্বপ্রাপ্ত সাংগঠনিক সম্পাদক মুহাম্মদ বদিউল আল, কাজী মাজহারুল ইসলামসহ যুবলীগের কেন্দ্র জেলা ও উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। জেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাহাবুদ্দিন সাবুর সঞ্চালণায় সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিশেবে বক্তৃতা করেন, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্জ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল। তিনি বক্তৃতায় জেলা যুবলীগে কমিটির গঠনের নেতা নির্বাচনের ক্ষেত্রে বিভিন্ন দিক নির্দেশনা প্রদান করেন। এছাড়াও বিএনপি জামায়াত চক্রের ইন্ধনে দেশী বিদেশী নানা ষড়যন্ত্রেও কথা উল্লেখ করে যুবলীগ নেতৃবৃন্দকে সজাগ ও সক্রিয় ভূমিকায় থাকার আহবান জানান।

উল্লেখ্য, ১৭ বছর পর মঙ্গলবার (২১ ডিসেম্বর) বরগুনা জেলা যুবলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনকে কেন্দ্র করে বরগুনা শহরকে বর্নিল সাজে সাজানো হয়। সকাল থেকে জেলা, উপজেলা ও পৌর যুবলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতা-কর্মী ও সমর্থকরা মিছিল নিয়ে সভাস্থলে এসে জড় হতে থাকেন। বেলা এগরটা নাগাদ শহীদ মিনার চত্বর যুবলীগ নেতা-কর্মীদের পদচারণায় মুখর হয়ে ওঠে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights Reserved
Developed By Cyber Planet BD