Home Privacy Policy About Contact Disclimer Sitemap
নোটিশ :
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ! সারাদেশে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে । যোগায়োগ করুন : ০১৭৪০৭৪৩৬২০
দুই মেয়রের ঠেলাঠেলিতে দুই বছরেও চালু হয়নি বরগুনা কেন্দ্রীয় পৌর বাস টার্মিনাল

দুই মেয়রের ঠেলাঠেলিতে দুই বছরেও চালু হয়নি বরগুনা কেন্দ্রীয় পৌর বাস টার্মিনাল

রাসেল হাওলাদার , বরগুনা :       সম্পূর্ণ সম্পন্ন ও সৌন্দর্যে মুখরিত বরগুনা কেন্দ্রীয় পৌর বাস টার্মিনাল। পৌরসভার গন্ডির মধ্যে টার্মিনালটির অবস্থান না হলেও জায়গা পেয়েছে পাশের একটি ইউনিয়নে যাহা ভবিষ্যতে বর্ধিত করন পৌর এলাকায় আঞ্চলিক মহাসড়কে খেজুরতলা নামক স্থানে । তবে বাস টার্মিনালটি প্রধান মহাসড়ক সংলগ্ন হওয়ায় যাত্রীগন যাতায়াতে পাবে নিরিবিলি পরিবেশ।

বরগুনা কেন্দ্রীয় পৌর বাস টার্মিনাল পূর্ব দিকে মুখ করে নীরবতা পালন করছে নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হওয়ার দীর্ঘ দুই ।
টার্মিনালের মধ্যে প্রবেশ ও প্রস্থানের জন্য রয়েছে আলাদা আলাদা পথ। প্রবেশ করলেই দেখা যাবে চারদিকে সুন্দর ফুটপাত। যাকে ঘিরে রয়েছে নানা ধরনের রুপবত্তা গাছের সমারোহে।

সুবিশাল এই টার্মিনালটির ঠিক মাঝখানে রয়েছে টিকিট কাউন্টার। উত্তর ও পশ্চিম কোণে রয়েছে গাড়ির গ্রেজিং ও মেকানিক্যাল সিস্টেম। সেই সাথে বাস স্টাফদের থাকার সুব্যবস্থা।

এ বাস টার্মিনালটি ও তার আশেপাশের পরিবেশ বর্তমানে বিনোদনের এক অবয়ব হিসেবেই পরিচিত হয়ে উঠেছে। পড়ন্ত বিকেলে ছোট-বড় সকলের মেলা বসে টার্মিনালটির এলাকা জুড়ে। এটাকে দুই বছর যাবত এভাবেই উপভোগ করে আসছে বরগুনাবাসী।

এ বাস টার্মিনালকে কেন্দ্র করে গড়ে উঠেছে প্রবেশ দ্বারে নানা ধরনের দোকান। বিকেলের দিকে বসে ফুচকা ও চটপটির দোকান। তবে দুই বছরেও বসেনি বিভিন্ন রুটে চলাচলকারী বাসের টিকিট বিক্রির জন্য কাউন্টার ম্যান।

টার্মিনালটির চুক্তি মূল্য চৌদ্দ কোটি চৌত্রিশ লক্ষ উনিশ হাজার তিনশত তেতাল্লিশ টাকা হলেও, সংশোধিত চুক্তি মূল্য পনেরো কোটি চুয়াত্তর লাখ চুয়ান্ন হাজার নয়শত পচিশ টাকা ব্যয় দাড়িয়েছে বলে জানায় প্রকৌশলী রেজাউল ইসলাম টুটুল। তিনি আরো বলেন, নির্মান কার্যক্রম ২৪ সেপটেম্বর ২০২০ ইং শেষ হওয়ার কথা থাকলেও শেষ হয়েছে গত ১০,জুলাই ২০২১ ইং।

বরগুনা কেন্দ্রীয় পৌরসভা বাস টার্মিনাল কবে নাগাদ উদ্বোধন ও চালু হতে পারে সে ব্যাপারে বরগুনা পৌর মেয়র এডভোকেট মোঃ কামরুল আহসান মহারাজ বলেন- আমি এ বাস স্ট্যান্ড নির্মাণের ঠিকাদারের প্রতিনিধিকে নিয়ে পৌর বাস টার্মিনালটি পরিদর্শন করেছি সপ্তাহদুয়েক হয়। ঠিকাদার মাহফুজ খানের নামে কাজটি বরাদ্দ থাকলেও মূলতঃ কাজটি করেছে সাবেক মেয়র ঠিকাদার মো. সাহাদাত হোসেন।

লাইটিংসহ কিছু ত্রুটি থাকায় রিপেয়ারের জন্য তাগাদা দিয়েছি, অসম্পন্ন অবস্থায় হ্যান্ডওভার নিচ্ছি না, তবে সম্পন্নর জন্য কাজটি চলমান রয়েছে। আশা করি চলতি মাসের মধ্যেই বাস টার্মিনাল বরগুনা পৌরসভাকে হস্তান্তর করবে এবং এও আশা করছি শীঘ্রই বরগুনা কেন্দ্রীয় পৌর বাস টার্মিনালটি উদ্বোধন করতে পারব।

প্রথম শ্রেনীর ঠিকাদার ও সাবেক মেয়র মো.সাহাদাত হোসেন বলেন, বাস টার্মিনালতো জানি হ্যান্ডওভার হয়ে গেছে বেশ কিছুদিন আগেই, তদুপরি মেয়র মহোদয়ের চাহিদা মত কাজ করে দিচ্ছে ঠিকাদার। আমিও চাই অতি দ্রুত যেনো আধুনিক টার্মিনাল থেকে যাত্রীসেবা গ্রহন করতে পারে বরগুনার সকল যাত্রীগন।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights Reserved
Developed By Cyber Planet BD