Home Privacy Policy About Contact Disclimer Sitemap
নোটিশ :
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ! সারাদেশে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে । যোগায়োগ করুন : ০১৭৪০৭৪৩৬২০
পূর্ব সুন্দরবনে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৩ ঘণ্টা

পূর্ব সুন্দরবনে আগুন, নিয়ন্ত্রণে ৩ ঘণ্টা

বেলা ১১টার দিকে আগুন লাগে

নিউজ ডেস্ক :       পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের ধানসাগর টহল ফাঁড়ি বনাঞ্চল এলাকায় আগুন লেগেছে। আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে আগুনের ঘটনার পর তা দুপুর ১২টার দিকে দৃশ্যমান হয়। খবর পেয়ে বন বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্য আগুন নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করেন। প্রাথমিকভাবে আগুনের কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি।

ফায়ার সার্ভিসের ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা মোহম্মদ ফরিদুল ইসলাম, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মুহম্মদ বেলায়েত হোসেনসহ পূর্ব সুন্দরবনে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা মোহম্মদ ফরিদুল ইসলাম জানান, আজ সোমবার বেলা ১১টার দিকে গ্রামবাসীরা ওই এলাকায় ধোঁয়ার কুণ্ডলি দেখে বনবিভাগকে খবর দেয়। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক বনরক্ষীদের একটি দল নিয়ে ঘটনাস্থলে যান তিনি। সংশ্লিষ্ট এলাকার চারদিকে আগুন যাতে না ছড়ায় তাই নালা কেটে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। পরে ফায়ার সার্ভিসের শরণখোলা ইউনিট যোগ দেয়। দুপুর ১২টার দিকে আগুনের ঘটনা দৃশ্যমান হয়। বনের আড়াই থেকে তিন একর বনাঞ্চলে আগুন ছড়িয়ে পড়েছিল। আগুন যাতে আরও বেশি এলাকায় ছড়িয়ে পড়তে না পারে সেজন্য চারদিকে ফায়ার লাইন কাটা হয়েছিল। বন বিভাগ ও ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা তিন ঘণ্টা চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, পর্যটক বা পথচার‌ীদের ফেলে যাওয়া বিড়ি-সিগারেটের আগুন থেকে এ ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। আগুন নিয়ন্ত্রনে এলেও ঘটনাস্থল ও আশেপাশের এলাকা ঘিরে রাখা হবে বলে জানিয়েছেন ধানসাগর স্টেশন কর্মকর্তা মোহম্মদ ফরিদুল ইসলাম।

এদিকে নাম প্রকাশ না করার শর্তে বন সংলগ্ন এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা জানান, সংশ্লিষ্ট বনরক্ষীদের ম্যানেজ করে একটি প্রভাবশালী চক্র বছরের পর বছর সুন্দরবনের বিভিন্ন বিল-ও জ্বলাশয়ের বিভিন্ন প্রজাতির দেশিয় মাছ লুট করে। প্রতি বছর শুস্কমৌসুমে চাঁদপাই রেঞ্জের বিভিন্ন বিলে মাছের খাদ্য হিসেবে গাছ পোড়ানো কয়লা তৈরি করতে গিয়ে আগুনের ঘটনা ঘটে থাকে। এসব ঘটনায় হয়রানির শিকার হন সাধারণ মানুষ। বন কর্মকর্তারা কোনো ঘটনার গভীরে প্রবেশ করে না বলেও তারা অভিযোগ করেন।

শরণখোলার ফায়ার সার্ভিস স্টেশন কর্মকর্তা এস.এম অদুদ আগুনের বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, অনেক কষ্টে আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছি। ঘটনাস্থলে পাহারা রয়েছে।

বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মুহম্মদ বেলায়েত হোসেন বলেন, ‘ইতোমধ্যে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে এবং আগুন লাগার কারণ খতিয়ে দেখা হবে।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights Reserved
Developed By Cyber Planet BD