Home Privacy Policy About Contact Disclimer Sitemap
নোটিশ :
আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন ! সারাদেশে সংবাদদাতা নিয়োগ চলছে । যোগায়োগ করুন : ০১৭৪০৭৪৩৬২০
মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলের ১৯ কিলোমিটার ইনারবার ড্রেজিং কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে

মোংলা বন্দরের পশুর চ্যানেলের ১৯ কিলোমিটার ইনারবার ড্রেজিং কার্যক্রমের শুভ উদ্বোধন করা হয়েছে

মাসুদ পারভেজ, বাগেরহাট প্রতিনিধি:      শনিবার (১৩ই মার্চ) দুপুরে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ’র আয়োজনে জয়মনিরঘোল ফুড সাইলোর পাশে ড্রেজিং সাইটে ইনার বারে প্রধান অতিথি হিসেবে ড্রেজিং প্রকল্পের উদ্বোধন করেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নৌ-পরিবহন মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

উদ্বোধনি অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক,পরিবেশ,বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার এমপি,নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয়ের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহ চৌধুরী।

বাংলাদেশ সরকারের অর্থায়নে এ প্রকল্পের মোট প্রাক্কলিত ব্যয় ধরা হয়েছে ৭৯৩ কোটি ৭২ লক্ষ ৮০ হাজার টাকা।প্রকল্পটির মূল উদ্দেশ্য মোংলা বন্দর জেটিতে ৯.৫-১০ মিটার ড্রাফটের জাহাজ হ্যান্ডলিং করা।জয়মনিরঘোল হতে বন্দর জেটি পর্যন্ত প্রায় ১৯ কিলোমিটার ব্যাপী ইনারবারে ২১৬.০৯ লক্ষ ঘনমিটার ড্রেজিং করা হবে। পশুর চ্যানেলের জয়মনিরঘোল থেকে বন্দর জেটি পর্যন্ত ১৯ কিলোমিটার এই ইনারবার খননের ফলে বন্দরের নব্যতা সংকট নিরসন হবে।রামপাল তাপবিদ্যুৎকেন্দ্র থেকে ফেয়ারওয়ে বয়া পর্যন্ত চ্যানেলের মোট দৈর্ঘ ১শ ৪৫ কিলোমিটার। মোংলা বন্দর জেটি থেকে হারবারিয়া(জয়মনিরঘোল)পর্যন্ত প্রায় ১৯কিলোমিটার ইনারবার হিসেবে চিহ্নিত।ইনারবার চ্যানেলের বর্তমান গভীরতা ৫দশমিক ৫মিটারের কম।বর্তমান এই গভীরতায় জোয়ারের সুবিধা নুয়ে সর্বোচ্চ ৭থেকে ৭দশমিক ৫মিটার ড্রাফটের জাহাজ জেটিতে আসতে পারে।এই ইনারবার ড্রেজিং প্রকল্পের কাজ ২০২২ সালে শেষ হবে।

প্রতিমন্ত্রী মোংলায় ড্রেজিং কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বলেন,নদীখননের মাধ্যমে সারাদেশে নৌ-বাণিজ্য সৃষ্টি হবে।কর্মসংস্থান হবে,বেকারত্ব দূর হবে এবং কৃষিনির্ভর কার্যক্রম বৃদ্ধি পাবে।সাশ্রয়ী মূল্যে যাত্রী এবং মালামাল পরিবহণ সহজ হবে।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার অঙ্গিকার শত বছরের পুরনো নদীর গতিপথ ফিরিয়ে আনা উল্লেখ করে করে তিনি বলেন,বঙ্গবন্ধু কন্য নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দেশ ও জনগনের জন্য নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন;তারই ফলশ্রুতিতে সারাদেশে ১০,০০০ কিলোমিটার নৌপথ খনন করা হবে।

ড্রেজিং কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ’র চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা’র পক্ষ থেকে বিশেষ অতিথিদের ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষ’র চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ মুসা’র সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন,বাগেরহাট জেলা প্রশাসক আ.ন.ম.ফয়জুল হক,মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য(হারবার ও মেরিন)ক্যাপ্টেন এম আব্দুল ওয়াদুদ তরফদার,সদস্য(প্রকৌশলী ও উন্নয়ন)মোঃ ইমতিয়াজ হোসেন, পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ গিয়াস উদ্দিন,ইনারবার ড্রেজিং প্রকল্প পরিচালক শেখ শওকত আলী,প্রধান প্রকৌশলী(সিভিল ও হাইড্রোলিক্স),কর্তৃপক্ষের বিভাগীয় প্রধানগণ,কর্মকর্তা-কর্মচারী,মোংলায় অবস্থিত শিল্প প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিগণ,বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ ও বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকগণ।

শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights Reserved
Developed By Cyber Planet BD